মেনু নির্বাচন করুন

জনবহুল ওমরাকান্দা ঘাট।

মেঘনার অন্যতম জনবহুল ঘাটের মধ্যে ওমরাকান্দা ঘাট হল একটি যার মাধ্যমে এলাকার বহু জনগন যাতায়াত করে থাকে।

নির্দলীয় তত্ত্বাবধায়ক সরকারব্যবস্থা পুনর্বহালের দাবি আদায়ের চূড়ান্ত আন্দোলনে জনগণের অংশগ্রহণ বাড়াতে মেঘনা ও কাঁঠালিয়া নদীতে ট্রলার নিয়ে দিনভর গণসংযোগ করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। এলাকাবাসী একে 'ট্রলারমিছিল' হিসেবেই মনে করছে। গতকাল নদীবেষ্টিত মেঘনা উপজেলায় স্থানীয় বিএনপির নদীপথে অর্ধশতাধিক ট্রলার নিয়ে গণসংযোগে নেতৃত্ব দেন ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন। এ সময় তিনি লুটেরচর, মোহাম্মদপুর বাজার, ওমরাকান্দা ঘাট, চরকাঁঠালিয়া, আলীপুর ঘাট, বালুচর, কাশিপুর বাজার, রাধানগর-মুগারচর ব্রিজ, তালতলী বাজার, চন্দনপুর ঘাট, তুলাতলী বাজার, সাতানী বাজার, রামপুর বাজার ও চালিভাঙ্গা বাজারে আলাদা ১৪টি পথসভায় বক্তৃতা করেন। বক্তব্যে তিনি বলেন, সংবিধানের দোহাই দিয়ে একতরফা নির্বাচনের চেষ্টা করলে পরিণতি হবে ভয়াবহ। জনগণ প্রহসনের নির্বাচন করতে দেবে না। শহীদ জিয়া, বেগম খালেদা জিয়া, তারেক রহমান, ড. মোশাররফ ও ড. মারুফের ছবিসংবলিত ব্যানার, ফেস্টুন ও প্লাকার্ড নিয়ে ঢোল-বাদ্য বাজিয়ে কয়েক হাজার মানুষ ট্রলারে চড়ে নদীপথে এ মিছিলে অংশ নেয়। লুটেরচর থেকে শুরু হয়ে ট্রলারমিছিলটি মেঘনা ও কাঁঠালিয়া নদীপথে পুরো মেঘনা উপজেলা প্রদক্ষিণ করে। এ সময় নদীর পাড়ে, বাড়ির আঙিনায় সমবেত নানা শ্রেণী-পেশার হাজারো মানুষ স্লোগান দিয়ে মিছিলকে স্বাগত জানায়। ড. মোশাররফ মিছিলের অগ্রভাগের ট্রলারে দাঁড়িয়ে হাত নেড়ে জনতার অভিনন্দনের জবাব দেন। এ সময় সঙ্গে ছিলেন বিএনপি নেতা, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ড. খন্দকার মারুফ হোসেন, বিএনপি নেতা মেজর (অব.) এম এম মেহবুব রহমান, কমান্ডার আব্বাস উদ্দিন মাস্টার, মো. রমিজ উদ্দিন প্রমুখ।

 

Share with :
Facebook Twitter